রোগ-সনাক্তকরণ বা ডায়াগনোসিস - Alzheimer Society of Bangladesh

Dementia Help Line

Cell No: +8801720 498197
Cell No: +8801857 601061

Email:- info@alzheimerbd.com

রোগ-সনাক্তকরণ বা ডায়াগনোসিস

রোগীর ঘনিষ্ঠ আত্মীয়-স্বজন বা বন্ধুবান্ধবের নিকট থেকে যত্নসহকারে রোগের বিবরণ সংগ্রহ এবং রোগীর ব্যক্তিগত শারীরিক ও মানসিক পরীক্ষা দ্বারা ডিমেনশিয়ার একটি যৌক্তিক ও সঠিক ডায়াগনোসিস করা যেতে পারে। প্রতিটি ক্ষেত্রেই মিনিমেন্টাল টেষ্ট স্কোর নির্ণয় অপরিহার্য। তবে ডিমেনশিয়া সনাক্ত  করার জন্য কোন সুলভ টেস্ট নেই এবং ডিমেনশিয়াই হয়েছে এটি নিশ্চিত করতে হলে রোগীর মৃত্যুর পরে তার মস্তিস্ক থেকে টিস্যু নিয়ে পরীক্ষা করে দেখতে হবে। জীবদ্দশায় এ ধরণের ডায়াগনোসিস এর জন্য গুরুত্ব পূর্ণ বিষয় হলো রোগীর স্মৃতিহ্রাসের  অন্য কোন কারণ নেই রএটা নিশ্চিত করতে হবে। ব্রেন টিউমার, ভিটামিন বি১, বি১২ স্বল্পতা, থাইরয়েড রোগ, মুত্রযন্ত্রে সংক্রমণ, ডিপ্রেশন বা অবসাদ, ইত্যাদি হতে পারে বা থাকতে পারে এমন কোন সন্দেহের অবকাশ থাকা চলবে না। এজন্য একটি সাধারণ রক্ত ও মুত্র পরীক্ষা, ইসিজি, সিটিস্ক্যান বা এম আর আই, টিএসএইচ, এবং প্রয়োজনবোধে বি১২ মাত্রা, সিরাম ইলেক্ট্রোলাইট ও অন্যান্য টেষ্ট করা দরকার হতে পারে।

বাস্তবতা মেনে নিন

কি পদ্ধতিতে ডিমেনশিয়া নির্ণয় করা হয় এবং কিভাবে তা গৃহিত হয় তার উপরে ডায়াগনোসিসের বাস্তবতা প্রচন্ডভাবে নির্ভর করে। যখন সেই ব্যক্তি এবং তার পরিবার ডিমেনশিয়া রোগের ডায়াগনোসিস সহজভাবে মেনে নিতে পারে এবং সহায়তা করতে প্রস্তুত থাকে তখন এর প্রাথমিক ধাক্কা সহজে সামলানো যায়। আর ভাল থাকার মঙ্গলবোধ এবং সার্বিক সহায়তা প্রাপ্তির আশা দিয়ে উদ্ভুত রাগ আর দুঃখ অচিরেই প্রশমিত হতে পারে।

দ্রুত সনাক্তকরণেই মঙ্গল  

সবসময়ই প্রাথমিক পর্যায়ে রোগটি সনাক্ত করা জরুরী, কারণ এর দ্বারা

  • রোগের প্রাবল্য বৃদ্ধির সাথে সাথে উদ্ভুত পরিস্থিতির সঙ্গে নিজেদের খাপ খাইয়ে নিতে যত্নকারী এবং ডিমেনশিয়া আক্রান্ত ব্যক্তি নিজেদেরকে ভালভাবে তৈরী করে নিতে পারেন এবং
  • সক্ষমতা থাকাকালীন সময়ের মধ্যে ডিমেনশিয়া আক্রান্ত ব্যক্তিগন তাদের অর্থনৈতিক ও আইনগত জটিলতা মিটিয়ে ফেলার সুযোগ পেতে পারেন।
  • এতে আক্রান্ত ব্যক্তির জন্য ডিমেনশিয়ার উপযোগী ঔষধপত্র এবং অন্যান্য চিকিৎসার ব্যবস্থা করার জন্য যথেষ্ঠ সময় হাতে থাকে। ফলে ঔষধ দ্বারা এবং প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ঔষধ-বিহীন চিকিৎসা সময়মত প্রাপ্তির ক্ষেত্রে রোগী অপেক্ষাকৃত অধিক সুবিধা লাভ করতে পারেন যা তার বুদ্ধিক্ষমতা ধরে রাখতে এবং জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে সহায়তা করে।